Uncategorized

হোয়াটসঅ্যাপ্ গ্রুপ চ্যাট্

একটা অদ্ভুত ব্যাপার লক্ষ্য করেছি। কলেজে বা স্কুলে পড়াকালীন যে যে বন্ধুদের মধ্যে হেব্বি ঝগড়া চলত, প্রায় মুখ দেখাদেখি বন্ধ – তাদের মধ্যে এই এতকাল পরে একদম জমাটি কথোপকথন, মানে WhatsApp-এর group chat-এ। আজকাল অ্যালার্ম দিয়ে ঘুম থেকে ওঠা প্রায় দরকারই হচ্ছেনা group chat-এ সাতসকাল থেকেই পিংপিং করে পরপর নোটিফিকেশন আসতে থাকে বলে, যেজন্য ঘুমোনোর আগে আজকাল আমি মোবাইলটা ভাইব্রেটর মোড করে রাখি, নইলে বেশ কয়েকবার রাত জাগা পাখিদের নন্ স্টপ কিচিরমিচিরে আমার কাঁচা ঘুম ভেঙেছে। বয়স বাড়লে সবারই কম বেশী ইনসমনিয়া হয়, আমি তার ব্যতিক্রম নই, তাই অনেক চেষ্টায় আসা ঘুম বারবার ভাঙলে সেটা খুব একটা সুখের এক্সপেরিয়েন্স্ হয়না।

খালি একটা জিনিস দেখে ভালো লাগে, পজিটিভ লাগে যে মানুষ খুব খারাপ এক্সপেরিয়েন্স্-ও একটা নির্দিষ্ট সময়ের পর ভুলে যায়। পুরনো বন্ধুত্বর চার্ম আলাদা কারণ সেই মানুষগুলো আমাদের অতীত দেখেছে, আমাদের ভাল-খারাপ-সারল্য-দুষ্টুমি-স্বপ্ন-শয়তানি-জটিলতা-হিংসে-ভালোবাসা প্রায় সবকিছু প্রথম চোখে দেখার মতো জেনেছে। সেই বীজ এতদিন পর বড় গাছের চেহারা নিয়ে পুরনো রাগ, অভিমান এমনকি শত্রুতাকে পর্যন্ত ঢেকে ফেলেছে মনে হয়। কেউ মোটামুটি ভালো আছে, কেউ দেখানোর চেষ্টা করছে যে ভালো আছে, কেউ একদম চুপচাপ আর কেউ group conversation-এই আসেনা। এটারই নাম মনে হয় Maturity যখন আমরা বুঝতে পেরে যাই ইগো জিনিসটা কতটা ঠুনকো, যে জীবনটার বেশ কিছু তরতাজা সময় পার করে খালি বাকী কয়েকটা আধা-তরতাজা বছর বেঁচে আছে তাকে ফালতু অহংকারে না চুবিয়ে যে যতটা পারে আনন্দ নিয়ে বাঁচতে চেষ্টা করা।logo-promo

Advertisements
Standard

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s